বিভাগ: বই পত্র

সংবিধিবদ্ধ নসিহত

2019-02 a

সংবিধিবদ্ধ নসিহত
লেখক : মোহাম্মদ ইকবাল
প্রকাশক:  মোহাম্মদ নওয়াব আলী
প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯
প্রচ্ছদ ও অলঙ্করণ : চারু পিন্টু
মূল্য : ২০০.০০ টাকা (দুইশ টাকা মাত্র)
পৃষ্ঠা : ৬৪
যোগাযোাগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

পথের কুহক

potarkhuhok01পথের কুহক
লেখক : ওয়াহিদ সারো

প্রকাশক  মোহাম্মদ: নওয়াব আলী
প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯
প্রচ্ছদ : চারু পিন্টু
মূল্য : ১৫০.০০ টাকা
পৃষ্ঠা : ৬৪

যোগাযোাগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

রোদের জখম

রোদের জখম লেখক : এম মোসাইদ খান প্রকাশক: মোহাম্মদ:নওয়াব আলী প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯ প্রচ্ছদ : চারু পিন্টু মূল্য : ২০০.০০ টাকা পৃষ্ঠা : ১৩৬ যোগাযোগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

রোদের জখম
লেখক : এম মোসাইদ খান
প্রকাশক: মোহাম্মদ:নওয়াব আলী
প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯
প্রচ্ছদ : চারু পিন্টু
মূল্য : ২০০.০০ টাকা
পৃষ্ঠা : ১৩৬
যোগাযোগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

চিন্তায় তুমি চেতনায় তুমি

চিন্তায় তুমি চেতনায় তুমি লেখক : তন্ময় ভট্টাচার্য্য প্রকাশক: মোহাম্মদ:নওয়াব আলী  প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯ প্রচ্ছদ : মোমিন উদ্দীন খালেদ মূল্য : ১৬০.০০ টাকা পৃষ্ঠা : ৪৮ যোগাযোগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

চিন্তায় তুমি চেতনায় তুমি
লেখক : তন্ময় ভট্টাচার্য্য
প্রকাশক: মোহাম্মদ:নওয়াব আলী
প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯
প্রচ্ছদ : মোমিন উদ্দীন খালেদ
মূল্য : ১৬০.০০ টাকা
পৃষ্ঠা : ৪৮
যোগাযোগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

কোয়ান্টাম সাফল্যের অনন্য ভুবনে

কোয়ান্টাম সাফল্যের অনন্য ভুবনে লেখক : সীতাব আলী প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯ প্রচ্ছদ : আদনান মোহাম্মদ মূল্য : ২৫০ টাকা পৃষ্ঠা : ১৬০

কোয়ান্টাম সাফল্যের অনন্য ভুবনে লেখক : সীতাব আলী প্রকাশক: মোহাম্মদ:নওয়াব আলী প্রকাশকাল : অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯ প্রচ্ছদ : আদনান মোহাম্মদ মূল্য : ২৫০ টাকা পৃষ্ঠা : ১৬০ যোগাযোগ:০১৭১১৪৮৪৬৬৮। রকমারি ডট কম

 

 

আল্লামা ফুলতলী (র.) এর ঈসালে সাওয়াব মাহফিল আজ

Photo: NM Nahid chy

Photo: NM Nahid chy

আল্লামা আব্দুল লতিফ চৌধুরী ফুলতলী (র.)-এর ১১তম ইন্তেকাল বার্ষিকী উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার জকিগঞ্জে ফুলতলী ছাহেববাড়ি সংলগ্ন বালাই হাওরে অনুষ্ঠিত হবে ঈসালে সওয়াব মাহফিল। মাহফিল উপলক্ষে লাখো ভক্ত-অনুরক্তকে বরণ করতে ইতোমধ্যে প্রস্তুত হয়েছে বালাই হাওর। তৈরি হয়েছে তিন ধাপে সুদৃশ্য স্টেজ ও ৮১ হাজার বর্গফুটের মূল প্যান্ডেল। এছাড়া, প্যান্ডেলের বাইরে বসার জন্য ১ লাখ ২০ হাজার বর্গফুট জায়গা প্রস্তুত হয়েছে। সুষ্ঠুভাবে খাবার পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৭০ হাজার বর্গফুটের খাবারস্থান। জকিগঞ্জ-আটগ্রাম রোডে রতনগঞ্জ বাজারের উত্তর ও দক্ষিণ উভয় দিকে গাড়ী পার্কিং-এর জন্য এগারটি মাঠ প্রস্তুত করা হয়েছে। রতনগঞ্জ বাজার থেকে ছাহেববাড়ি অভিমুখী রাস্তার মুখে মোটর সাইকেল রাখারও সুব্যবস্থা করা হয়েছে। সার্বিক শৃঙ্খলার জন্য প্রস্তুত হয়েছে প্রায় হাজারো স্বেচ্ছাসেবক। ইতোমধ্যে স্বেচ্ছাসেবকদের প্রশিক্ষণ ও দায়িত্ব বণ্টনও সম্পন্ন হয়েছে। প্রশাসনের সহযোগিতায় আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। গত শুক্রবার মাহফিলস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উত্তর জোন) আবুল হাসনাত, জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম, জকিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: হাবিবুর রহমান হাওলাদার ও সাব ইন্সপেক্টর সৈয়দ ইমরোজ তারেক প্রমুখ।
সকাল ১০টায় আল্লামা ফুলতলী (র.)-এর কবর জিয়ারতের মাধ্যমে শুরু হবে মাহফিলের কার্যক্রম। এরপর খতমে কুরআন ও দুআর মাধ্যমে শুরু হবে মূল অনুষ্ঠান। এতে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে খতমে বুখারী, খতমে খাজেগান, দালাইলুল খায়রাত শরীফের খতম, যিকর মাহফিল, বিষয়ভিত্তিক বয়ান ও স্মৃতিচারণমূলক আলোচনা। মাহফিলে তা’লীম-তরবিয়ত প্রদান করবেন আল্লামা ফুলতলী (র.)-এর সুযোগ্য উত্তরসূরী, আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী।
মাহফিলে দেশ-বিদেশের প্রখ্যাত পীর-মাশায়িখ, আলিম-উলামা, ইসলামী শিক্ষাবিদ, চিন্তাবিদ ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত হবেন। মাহফিলকে সফল ও স্বার্থক করে তুলতে ঈসালে সাওয়াব মাহফিল বাস্তবায়ন কমিটির পক্ষ থেকে সর্বস্তরের মুসলিম জনতার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।

কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী

bd-ptatidin-Sf-04-02-17-03আধুনিক লাইফস্টাইলের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাড়ছে নানা রোগের ডিপো। সেই তালিকায় রয়েছে কিডনি রোগও। বাড়ছে কিডনি রোগীর সংখ্যা। এই কিডনি সমস্যার সমাধানে দারুণ সাফল্য অর্জন করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বিজ্ঞানী। নতুন এই আবিষ্কারটির সফল পরীক্ষাও চালিয়েছেন তিনি। হয়তো ২০১৯ সাল নাগাদ বাজারে আসবে কৃত্রিম কিডনি।

কিছুদিন আগে বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম কিডনি তৈরি করে ব্যাপক  হৈচৈ ফেলে দেন বাংলাদেশি বিজ্ঞানী শুভ রায়। তার আবিষ্কৃত এই কৃত্রিম কিডনি আসল অঙ্গের মতোই কাজ করতে সক্ষম। এই কিডনি রক্তের বিষাক্ত পদার্থ ছাঁকা থেকে শুরু করে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও ভিটামিন ডি তৈরি, সব কাজই করতে পারবে।

আধুনিক জীবন জেট গতির লাইফস্টাইল। ফাস্টফুডের প্রতি তীব্র ভালোবাসা। পরিণত বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শরীর রোগের ডিপো। বারোটা বাজছে হার্ট, ফুসফুস, লিভার, কিডনির। ক্রনিক হচ্ছে কিডনির রোগ। ডায়ালাইসিসের জন্য হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে থাকতে হয় ঘণ্টার পর ঘণ্টা। এসব সমস্যার সমাধানই হলো কিডনি প্রতিস্থাপন। খুব শিগগিরই বাজারে আসছে বিজ্ঞানী শুভ রায়ের এই কৃত্রিম কিডনি। আকারে হাতের মুঠোর সমান। খরচ তুলনায়ও অনেকটাই কম। ২০১৯-এর মধ্যেই বাজারে আসার সম্ভাবনা এই কৃত্রিম কিডনির।

ইতিমধ্যে এই আবিষ্কারের কার্যকারিতা পরীক্ষা করেছেন শুভ রায়। তিনি আশা করছেন, কয়েক বছরের মধ্যে এই কিডনি মানবদেহে প্রতিস্থাপন করা সম্ভব হবে। তবে এ জন্য প্রয়োজনীয় পরীক্ষার আগে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি দরকার। আপাতত সেই অনুমতির অপেক্ষায় আছে শুভ রায়ের দল।

এ প্রসঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে শুভ জানান, ১০ বছর আগে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ জন সহকর্মীকে নিয়ে কৃত্রিম কিডনি তৈরির কাজ শুরু করেন তারা। এই প্রকল্প সফল হলে মানবদেহের জন্য প্রয়োজনীয় কিডনির চাহিদা অনেকটাই পূরণ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। শুভর এই আবিষ্কারের খবর ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে প্রকাশিত জার্নাল ‘টেকনোলজি রিভিউ’তে ছাপা হয়েছে। এ ছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যমে এই খবর ফলাও করে প্রচার করা হয়।

মনেপ্রাণে বাংলাদেশি শুভ

কিন্তু কিছু গণমাধ্যমে শুভকে ‘ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক’ উল্লেখ করায় খানিকটা চটেছেন এই বাংলাদেশি বিজ্ঞানী। পড়াশোনা এবং কর্মজীবনে আমেরিকায় স্থায়ী হলেও মনেপ্রাণে নিজেকে বাংলাদেশি হিসেবেই গর্ববোধ করেন এই বিজ্ঞানী। শুভ বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের ছেলে। বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে বিদেশে গেছি। আমাকে কেন ভারতীয় হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে, এটা নিয়ে আমি বিব্রত।’ উল্লেখ্য, বাংলাদেশের চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন শুভ। উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিয়েছিলেন। এর আগে বাবার কর্মক্ষেত্রের সুবাদে উগান্ডায় বসবাস করেন অনেকদিন।

চলছে পরীক্ষা-নিরীক্ষা

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক কৃত্রিম কিডনির সহ-আবিষ্কারক শুভ রায় জানান, আমেরিকায় তৈরি এই যন্ত্র আপাতত সেদেশের কয়েক হাজার রোগীর দেহে পরীক্ষামূলকভাবে বসানো হয়েছে। শারীরিক সুরক্ষা ও সর্বাঙ্গীন সাফল্যের পরীক্ষায় উতরালে তা বাজারে ছাড়ার অনুমতি দেবে মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রক এফডিএ।

যেভাবে কাজ করে কৃত্রিম কিডনি

এর উত্তরে শুভ রায় বলেন, যন্ত্রটি সহজেই পেটের ভিতরে স্থাপন করা যায়। স্বাভাবিক কিডনির মতো রক্ত শোধন করা ছাড়াও হরমোন উৎপাদন ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম। সাধারণ হিমোডায়ালিসিস প্রক্রিয়ার মতো রক্ত থেকে বিষাক্ত বর্জ্য বাদ দেওয়া ছাড়াও জীবন্ত কিডনি কোষ দিয়ে তৈরি বায়ো রিঅ্যাক্টর এবং সূক্ষ্ম পর্দার মাধ্যমে রক্ত শোধনের কাজ নিখুঁতভাবে করতে পারে কৃত্রিম কিডনি।

কম খরচ

কিডনি সমস্যায় বাংলাদেশে প্রতি বছর অসংখ্য মানুষের মৃত্যু হয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ডায়াবেটিস এবং হাই ব্লাড প্রেশারই তার অন্যতম কারণ। কিডনির ক্রনিক সমস্যা সমাধানে ডায়ালাইসিস বা কিডনি প্রতিস্থাপনের খরচ অনেক।

কৃত্রিম কিডনির সঠিক খরচের হিসাব এখনই না বললেও শুভ রায়ের দাবি, ডায়ালাইসিস ও কিডনি প্রতিস্থাপনের চেয়ে অনেক কম খরচে বসানো যাবে কৃত্রিম কিডনি।

লালাবাজার ইউনিয়ন উন্নয়ন টাস্ট ইউকে’র বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত

1

গত ৫ই নম্ভেম্বর ২০১৮ সোমবার লালাবাজার ইউনিয়ন উন্নয়ন টাস্ট ইউকে এর প্রথম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্টিত হয় ইস্ট লন্ডনের একটি স্থানীয় হলে । সংগঠনের সভাপতি আব্দুল মুক্তার সাইস্তার সভাপতিত্বে অনুষ্টানের শুরুতে কোরান তেলাওত করেন ফয়ছল আলী আহমেদ ।সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ রফিক উদ্দিন এর পিতা সদ্য প্রয়াত আলহাজ্ব রইছ মিয়া সাহেবের আত্নার শান্তি ও মাগফিরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন হাবিবুর রহমান ।
ট্রাস্টে বার্ষিক প্রতিবেদন পেশ ও অনুষ্টান পরিচালনার পাশাপশি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মকসুদ রহমান এবং ট্রাস্টের বার্ষিক হিসাব পেশ করেন কোষাধ্যক্ষ রফিক উদ্দিন ।
উক্ত অনুষ্ঠানে লন্ডন এবং লন্ডনের বাইরে থেকে আগত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে
স্বাগত বক্তব্যে রাখেন ট্রাস্টের সভাপতি আব্দুল মুক্তার সাইস্তা এবং ট্রাস্ট পরিচলনা ও ট্রাস্টের আগামী কর্ম পরিকল্পনা বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্যে রাখেন আব্দুল হক আবু, আব্দুল আহাদ,  ফখর উদ্দিন ফারুক, আরশ আলী, সাইস্তা মিয়া, মিয়া মোহাম্মদ চন্দন, ও মোহাম্মদ সামসুল হুদা

টাওয়ার হেমলেট এর সাবেক স্পীকার খালেছ উদ্দিন তিনি তার বক্তব্যে বলেন
আমি খুবই আনন্দিত ও অবিভুত এত দ্রুত সময়ে বিপুল সংখ্যক ট্রাস্টি সদস্য হয়েছেন এবং সে জন্য তিনি সংগঠনের সকল কর্তকর্তা সাধুবাদ জনান ।

তাকবীর হোসেন দুলাল বলেন গত অভিষেক ও ঈদ পুর্নমিলনী অনুষ্টানে আসা তার মেয়ে অন্যান্য ছেলে মেয়ে সাথে পরিচিত হয়ে এবং এলার সবাইকে এক সাথে দেখ খুবই আনন্দিত হয়েছে তাকবীর হোসেন দুলালের কথার সূত্র ধরে ফয়ছল আলী আহমেদ বলেন এদেশে বেড়ে উঠা আমাদের প্রজন্মকে
ট্রাস্টের সাথে যুক্ত করতে পারলে এলার সবার সাথে তাদের সুসম্পর্ক গড়ে উঠবে এবং ট্রাস্টও আরও গতিশীল হবে ।

বিলেতে বেড়ে উঠা প্রজন্মের সাদেক আহমেদ বলেন লালাবাজার ইউনিয়ন উন্নয়ন টাস্ট ইউকে এর সাথ যুক্ত হতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত ট্রাস্টের সাথে যুক্ত হওয়ায় আমাদের এলার সবার সাথে পরিচিত হতে পেরেছি । উক্ত অনুষ্ঠানে ট্রাস্টে গঠনতন্ত্র বাংলা ও ইংরেজী চুড়ান্ত অনুমোদন করা হয় ।
এছাড়াও আরও বক্তব্যে রাখেন লাল মিয়া, নাছির উদ্দিন,  রফিক উদ্দিন, বদরুল হক শাহীন, শহিদুল ইসলাম, মিরাজ নানু, আব্দুল কাইয়ুম সুনেল, মামুন রহমান, এম মোসাইদ খান, দারা হোসেন পলাশ, মুহিবুর রহমান, উম্মর আলী রিপন, সুভাস কান্তি নাথ, আব্দুল কালাম, জসিম উদ্দিন জুনায়েল, একমান আলী প্রমুখ ।

উল্লেখ্য লালাবাজার ইউনিয়নে ফ্রী চক্ষু শিবির পরিচালনার সিদ্বান্ত গৃহিত হয় এবং এর জন্য
জন্য প্রায় ৭লাখ টাকার আর্থিক প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন উপস্থিত সদস্যরা ।
নৈশভোজ শেষে অনুষ্টানের সামাপ্তি ঘোষণা করা হয় ।

2

বাসিয়া প্রকাশনীর আড্ডায় বক্তারা আড্ডা থেকে একটি ভালো লেখার নির্যাস আহরণ করা যায়

01আড্ডা থেকে একটি ভালো লেখার নির্যাস আহরণ করা যায়। একজন লেখকের লেখালেখিকে বেগবান করতে হলে আড্ডার কোন বিকল্প নেই। আড্ডা কিংবা আড্ডাবাজদের সংখ্যা প্রযুক্তির কারণে দিন দিন কমে যাচ্ছে। কিন্তু আজকের আড্ডায় আড্ডাবাজদের উপস্থিতি প্রমাণ করে এখনও সৃজনশীল মানুষ আড্ডা দিতে চায়।
গত ৬ এপ্রিল শুক্রবার বিকেলে বাসিয়া প্রকাশনীর উদ্যোগে কবি ও নাট্যকার জালাল উদ্দিন নলুয়া, কবি ও গীতিকার লুৎফা জালাল ও প্রবাসী কবি ইকবাল বাহার সুহেলকে নিয়ে সিলেটের স্টেশন রোডস্থ বাসিয়া প্রকাশনী কার্যালয়ে এক অন্তরঙ্গ আড্ডায় বক্তারা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
বাসিয়া প্রকাশনীর কর্ণধার মাসিক বাসিয়া পত্রিকার সম্পাদক গীতিকার মোহাম্মদ নওয়াব আলীর সভাপতিত্বে ও ইসামতি কলেজের প্রভাষক কলামিস্ট জ্যোতিষ মজুমদারের সঞ্চালনায় প্রাণবন্ত আড্ডা ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য, কবি ও গল্পকার সাবিনা আনোয়ার, কবি ও সাংবাদিক সাইদুর রহমান সাঈদ, খেলাঘর সিলেট জেলা কমিটির সভাপতি ছড়াকার তাজুল ইসলাম বাঙালি, কবি ও সংগঠক লায়েক আহমেদ নোমান, দক্ষিণ সুরমা সাহিত্য পরিষদের সহসভাপতি গীতিকবি হরিপদ চন্দ, মুক্তিযোদ্ধা ও গীতিকার হেলাল উদ্দিন দাদন, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কবি মিজানুর রহমান মিজান, নোলক কালচারাল একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা, কবি ও সংগঠক নিলুফা সুলতানা লিপি, গাংচিল সম্পাদক ঔপন্যাসিক শাহ ফারজানা আহমেদ, বাউল শিল্পী মো. বদরুল, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ইন্সটাক্টর ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুর রহিম, গীতিকার রহমত আলী ও শাহ মাশরুকা জাহান এশা।

একুশে গ্রন্থমেলায় মাদক পাচার ও মাদকাসক্তি : বাংলাদেশ একটি ঝুঁকিপূর্ণ দেশ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

62একুশে গ্রন্থমেলার মোড়ক উন্মোচনী মঞ্চে গত ২৬ ফেব্র“য়ারি সন্ধ্যায় বরেণ্য চিকিৎসক ও লেখক অধ্যাপক ড. অরূপরতন চৌধুরীর ‘মাদক পাচার ও মাদকাসক্তি : বাংলাদেশ একটি ঝুঁকিপূর্ণ দেশ’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।
সিলেটের বাসিয়া প্রকাশনী কর্তৃক প্রকাশিত গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন করেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন ড. অরূপরতন চৌধুরী তামাকে বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে সরকারকে সহযোগিতা করেছেন। ঠিক তিনি মাদকের বিরুদ্ধেও আপোশহীনভাবে আন্দোলন করে যাচ্ছেন। নেশার বিরুদ্ধে তার আন্দোলনের ফলে আমাদের যুব সমাজ সঠিক পথে ধাবমান হচ্ছে। তাই তার সাথে তালমিলিয়ে নেশামুক্ত সমাজ গঠনে আমাদের সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।
এসময় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, কবি ও ছড়াকার আসলাম সানী, ছড়াকার এম আর মনজু, গ্রন্থের লেখক ড. অরূপরতন চৌধুরী ও প্রকাশক গীতিকার মোহাম্মদ নওয়াব আলী।

Developed by: