বিভাগ: খেলাধুলা

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ ১৮২ রানে অলআউট

1410153193প্রথম টেস্টে প্রথম ইনিংসে ১৮২ রানে অল আউট হয়েছে বাংলাদেশ দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৭১ ওভার ৪ বল খেলে এই রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা। তৃতীয় দিনের খেলা শেষে ফলোঅনে পড়েছে বাংলাদেশ।
অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ৪৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে সুলেমান বেন পেয়েছেন ৫ উইকেট। প্রথম ইনিংসে ৪৮৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশের পক্ষে একমাত্র অর্ধশতকের (৫১) দেখা পান মুমিনুল হক। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংসে তাইজুল ইসলাম ৫ ইউকেট নেন।

জার্মানদের কিছু মজার খেলা

1410032225অনলাইন ডেস্ক০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ইং ০১:৩৭ মিঃ
কাদায় দৌড় প্রতিযোগিতা, বুট নিক্ষেপ, ক্রেজি ক্রসিং – জার্মানিতে এ সব মজার খেলার আয়োজন গ্রীষ্মকালে প্রায়ই হয়ে থাকে৷ আসলে পুরো ব্যাপারটাই আনন্দের এবং মজার৷ আর এ বছরের গ্রীষ্মেও তার ব্যতিক্রম হয়নি৷
কাদায় দৌড়
লোয়ার স্যাক্সনির পূর্ব ফ্রিসল্যান্ডে প্রতি বছর কাদার মধ্যে স্লেজ গাড়ি চালানোর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ হয়৷ আর চারটি দেশের ২৪টি দল এতে অংশ নেয়৷ বলা বাহুল্য, পূর্ব ফ্রিসল্যান্ডে এই বিশ্বকাপ ব্যাপক জনপ্রিয়৷
কাঠের গুঁড়ি ছোড়া
গত কয়েক শতাব্দী ধরে স্কটল্যান্ডে এই প্রতিযোগিতা চলে আসছে, যা বর্তমানে জার্মানিতেও ব্যাপক জনপ্রিয়৷ লোয়ার স্যাক্সনির গ্রোসগল্টার্নে চতুর্থবারের মতো এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়৷ ৩৫ থেকে ৬০ কেজি ওজনের ‘লগ’ বা কাঠের গুঁড়িটি যে যত দূরে ছুড়তে পারে – তা নিয়েই প্রতিযোগিতা৷ তবে এর নির্দিষ্ট কোনো লক্ষ্য নেই৷
গরু ধরা
ফরাসি এবং ডাচরা ইউরোপের সেরা রাখাল বা কাউ বয় হিসেবে পরিচিত৷ কুহফাঙ্গেনের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে গরু ধরার প্রতিযোগিতায় তাই তারাই বিজয়ী হয়৷ এবারের প্রতিযোগিতায় ইটালি, জার্মানি, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস ও অস্ট্রিয়া থেকে অন্তত ১০০ ঘোড়সওয়ার অংশ নিয়েছিলেন৷
গামবুট ছোড়া
১২০ বছর আগে ফিনিশ নাবিকরা এই প্রতিযোগিতা শুরু করে৷ যে যত দূরে বুট ছুড়তে পারবে সেই বিজয়ী৷ জার্মানিতে ২০০৭ সালে গামবুট ছোড়ার বিশ্বকাপ প্রথম শুরু হয়৷
ক্রেজি ক্রসিং
‘ক্রেজি ক্রসিং’ প্রতিযোগিতা হয় হানোফার শহরে৷ ১২টি দল এতে অংশ নেয়৷ লক্ষ্য হলো প্রতিটি দল নিজেদের বানানো নৌকা নিয়ে ৩০০ মিটার দূরে দূরে থাকা বাধাগুলো অতিক্রম করবে৷ সব প্রতিযোগীদের পোশাক হবে দেখার মতো৷
রং দৌড়
জার্মানিতে দ্বিতীয়বারের মতো এই বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে, যেখানে ৫ কিলোমিটার দৌড়াতে হয়৷ ৫৫০০ জন অ্যাথলিট মিউনিখে এই প্রতিযোগিতা এবং এর সাথে জড়িত নানা বর্ণিল অনুষ্ঠানে অংশ নেন৷ ভারতের হোলি উৎসব থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই এই প্রতিযোগিতার চল শুরু হয়েছে৷ প্রতিযোগীদের পোশাকে নানা রং লাগানো থাকে৷
কাঠ কাটার প্রতিযোগিতা
এ বছর জার্মানির বাভেরিয়া রাজ্যে অবস্থিত মিউনিখ শহরে এই চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজন করা হয়েছিল৷ প্রতিযোগীদের ২.৮০ মিটার লম্বা গাছের গুড়ি ফাঁড়তে দেয়া হয়৷
কঠিন কাদা দৌড়
কাদার মধ্যে বিভিন্ন বাধা পেড়োনো দৌড়ের জন্য আপনি কি প্রস্তুত? ব্রান্ডেবুর্গের এই আয়োজনে এটাই কিন্তু ছিল প্রতিযোগিতার মূল বিষয়৷ এই প্রতিযোগিতায় কাদার মধ্যে ১৮ কিলোমিটার পথ দৌড়াতে হয় বিভিন্ন বাধা পেড়িয়ে৷
কাদাতেই মজা
কাদার মধ্যে মজা যেমন রয়েছে, তেমনি সেই মজার শেষে আপনাকে আর কেউ একজন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি বলতে পারবে না৷ অর্থাৎ, আপনার পা থেকে মাথা পর্যন্ত পুরো শরীর ঢেকে যাবে কাদায়৷
(বিবিসি)

শোয়েন্সটাইগার জার্মানির নতুন অধিনায়ক

a3a80b93f6bb0ae7d901d1fbc825d324বাস্তিয়ান শোয়েন্সটাইগারকে দলের অধিনায়ক হিসেবে নির্বাচিত করেছেন জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো। সদ্য আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর নেয়া ফিলিপ লামের স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।

ব্রাজিল বিশ্বকাপে জার্মানিকে বিশ্বকাপ জয়ে নেতৃত্ব দেয়ার পর ফিলিপ লাম আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছিলেন। লো মনে করেন, লামের বায়ার্ন সতীর্থ শোয়েন্সটাইগারই হলেন জার্মানিকে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য আদর্শ ব্যক্তি।
এক প্রেস কনফারেন্সে লো বলেন, “বাস্তিয়ান একজন আদর্শ নেতা। মাঠে এবং মাঠের বাইরে এর আগেও সে জাতীয় দলের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেছে।”

শোয়াইনির ওপর তার আস্থা আছে জানিয়ে জোয়াকিম লো বলেন, “ তার প্রতি আমার বিশ্বাস ও আস্থা রয়েছে। দলের টেকনিক্যাল স্টাফদেরও তার ওপর পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে। সে দল ও বয়স নির্বিশেষে দলের সকল খেলোয়াড়কে একতাবদ্ধ করেছে। সে-ই দলের জন্য যোগ্য নেতা।

২০০৪ সালে জার্মানির হয়ে অভিষিক্ত হওয়া ৩০ বছর বয়সী শোয়েন্সটাইগার কাইজারদের হয়ে একশ’ ম্যাচেরও বেশি খেলেন।

আগামী বুধবার আর্জেন্টিনার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে জার্মানি ও আর্জেন্টিনা মুখোমুখি হবে। তবে সেই ম্যাচে ইনজুরির জন্য খেলতে পারবেন না জার্মানির এই নতুন অধিনায়ক। খেলায় দলকে নেতৃত্ব দিবেন জার্মানির বায়ার্ন গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নয়ার।

৩১ বছর পর অসি বধ

untitled-10_82933নিজেদের ইতিহাসের প্রথম দেখাতেই শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়াকে চমকে দিয়েছিল পুঁচকে জিম্বাবুয়ে। সেটা ১৯৮৩ সালের কথা। তারপর হেরেছে ২৭টি ম্যাচ। গতকাল ৩১ বছর পর আবারও জয়ের সুযোগ পেল জিম্বাবুইয়ানরা। সেই সুযোগ আর নষ্ট হতে দিলেন না অধিনায়ক এলটন চিগুম্বুরা (৬৮ বলে ৫২) ও প্রসপার উতসেয়া (২৮ বলে ৩০)। তাদের দুর্দান্ত দৃঢ়তায় অস্ট্রেলিয়াকে ৩ উইকেটে হারিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটকেই চমকে দিল জিম্বাবুয়ে। পরিণত ক্রিকেট খেলে দীর্ঘ তিন দশক পর জিম্বাবুয়ের এই অসি-বধ হারারে স্পোর্টস গ্রাউন্ডে উপস্থিত স্বাগতিক দর্শক-সমর্থকদের স্বাভাবিকভাবেই আনন্দে ভাসিয়ে দিল। মিচেল স্টার্কের বলে প্রসপার উতসেয়া যখন মিড উইকেটে ছয় মেরে ম্যাচ শেষ করলেন, তখন উভয় ব্যাটসম্যানের মধ্যে তেমন বাঁধভাঙা আনন্দ দেখা গেল না ঠিক। তবে, সতীর্থরা যেভাবে মাঠের কেন্দ্রে দৌড় দিলেন, তাতে এ জয়টা জিম্বাবুয়ের জন্য যে বিশাল অর্থ বহন করে, তা বলাই বাহুল্য। তিন জাতি ওয়ানডে সিরিজে গতকাল টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন দলে ফিরে আসা নিয়মিত অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। কিন্তু তিনি ছাড়া টপ অর্ডারে আর কোনো ব্যাটসম্যান দাঁড়াতেই পারেননি। ফলাফল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার সর্বনিম্ন স্কোর : ৯ উইকেটে ২০৯ রান। চোট নিয়ে খেলেও অধিনায়ক ক্লার্ক ১০২ বলে ২ চারে দলীয় সর্বোচ্চ ৬৮ রান করেন। সাতে নেমে ৪৯ রান করেন উইকেটকিপার ব্র্যাড হ্যাডিন। দশে নেমে বেন কাটিং ২২ বলে ২৬ রান না করলে অসিদের এই রানও করা হয় না। জিম্বাবুয়ের পক্ষে প্রসপার উতসেয়া, শন উইলিয়ামস ও ডোনাল্ড ত্রিপানো দুটি করে উইকেট নেন। জবাব দিতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আগের ম্যাচের ব্যর্থতারই যেন পুনরাবৃত্তি করতে বসেছিলেন জিম্বাবুয়ের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানরা। উতসেয়ার হ্যাটট্রিকের বদৌলতে প্রোটিয়াদের ২৩১ রানে বেঁধে ফেলেও সেই ম্যাচ ব্যাটসমানদের ব্যর্থতায় স্বাগতিকরা হেরে গিয়েছিল ৭০ রানে। গতকালও ১০৬ রানে ৫ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। ১৪২ রানে ষষ্ঠ উইকেট। এর মধ্যে বলার মতো খেলেছেন শুধু ব্রেন্ডন টেলর (২৬ বলে ৩২ রান)। ১৫৬ রানের মাথায় সপ্তম উইকেট পতনের পর জিম্বাবুয়ের হার যখন সময়ের ব্যাপার, তখনই ঘুরে দাঁড়ান চিগুম্বুরা ও উতসেয়া। অষ্টম উইকেট জুটিতে তারা ৯.৪ ওভারে ৫৫ রান তুলে ১২ বল বাকি থাকতেই দলকে জয়ের বন্দরে পেঁৗছে দেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর : অস্ট্রেলিয়া :২০৯/৯ (৫০ ওভার) ক্লার্ক ৬৮*, হ্যাডিন ৪৯, কাটিং ২৬ ; উইলিয়ামস ২/২১, ত্রিপানো ২/৩৪, উতসেয়া ২/৪৫)। জিম্বাবুয়ে :২১১/৭ (৪৮ ওভার) চিগুম্বুরা ৫২*, উতসেয়া ৩০*, টেইলর ৩২ ; লায়ন ৪/৪৪,স্টার্ক ২/৪১, ম্যাক্সওয়েল ১/৪১। ফলাফল : জিম্বাবুয়ে ৩ উইকেটে জয়ী।

ফুটবল দল গড়বেন শাকিরা

1409388189পপ স্টার শাকিরা দ্বিতীয়বার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় শুভ কামনা জানানোয় টুইটারে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ভক্তদের। কনটাক্টমিউজিক ডটকমের বরাত দিয়ে এনডিটিভি এ খবর জানায়।
‘ওয়াকা ওয়াকা’ গায়িকা শাকিরা দ্বিতীয়বার মা হওয়ার বাসনার বাস্তবায়নের রূপের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ফুটবল স্টার গেরার্ড পিকিউয়ে-কেই সঙ্গী করে এর আগে শাকিরা প্রথম পুত্র সন্তানের (১৯ মাস বয়সী মিলান) জন্ম দিয়েছিলেন।
আগেই ৩৭ বছর বয়সী এই গায়িকা স্বীকার করেছিলেন তিনি ফুটবল স্টার গেরার্ডকে সঙ্গী করে অনেক সন্তান লাভ করতে চান। নিজের ফুটবল দল গঠন করতে গেরার্ডকে নিয়ে শাকিরা আট থেকে নয়টি সন্তান লাভ করতে চান।

শ্রীলংকা-পাকিস্তান ওয়ানডে সিরিজ পাকিস্তানকে ৭৭ রানে হারিয়ে ১-১ এ সমতা আনলো শ্রীলংকা

27-04হামবানটোটায় তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সফরকারী পাকিস্তানকে ৭৭ রানে হারিয়ে ১-১ সমতা আনলো শ্রীলংকা। জয়ের জন্য ৩১১ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ৪৩ ওভার ৫ বলে ২৩৩ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান।
মোহাম্মদ হাফিজ ৬২ আর আহমেদ শেহজাদ করেন ৫৬ রান। এছাড়া অধিনায়ক মিসবা ৩৬ এবং ফাওয়াদ আলমের ব্যাট থেকে আসে ৩০ রান। শ্রীলংকার থিসারা পেরেরা ৩টি এবং মালিঙ্গা, হেরাথ ও প্রসন্ন প্রত্যেকেই দুটি কওে উইকেট পান।

এর আগে মাহিন্দা রাজা পাকসে স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলংকা। শুরুতেই ওপেনার দিলশানের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে লংকানরা। এরপর দলীয় ৫১ রানের মাথায় আউট হন সাঙ্গাকারা।

২৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন উপল থারাঙ্গা। চতুর্থ উইকেট জুটিতে মাহেলা জয়াবর্ধনে ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস দলের খাতায় যোগ করেন ১২২ রান। ৬৭ রান কওে আউট হন মাহেলা। অল্পের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেছেন ম্যাথিউস। ৯৩ রান কওে ওহাব রিয়াজের বলে আউট হন তিনি। শেষ দিকে থিসারা পেরেরার ৩৬ বলে ৬৫ রানের সুবাদে ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ৩১০ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর কও শে্রীলংকা।

ওহাব রিয়াজ ৪টি এবং মোহাম্মদ হাফিজ পান ৩ উইকেট। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন শ্রীলংকার থিসারা পেরেরা।

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ ৩০ আগস্ট ডাম্বুলায় অনুষ্ঠিত হবে।

সাকিবের শাস্তি কমল

27-02বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, এমপি এর আগেই এমন ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। গতকাল সেই অনুযায়ীই সাকিব আল হাসানের আবেদনের প্রেক্ষিতে তার নিষেধাজ্ঞা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি।
বোর্ডের বৈঠক শেষে সভাপতি জানিয়েছেন, আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের পর থেকে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার জন্য সাকিবের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে। আগে ঘোষিত ছয় মাসের শাস্তি কার্যত কমিয়ে দুই মাসে পরিণত করা হয়েছে। তবে দেশের বাইরের বিভিন্ন লিগে খেলার ব্যাপারে বোর্ডের যে দেড় বছরের আপত্তি, সেটি এখনও প্রত্যাহার করা হয়নি।
এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ফলে সাকিব আসছে এশিয়ান গেমস ও জিম্বাবুয়ে সফরেই খেলার জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। এছাড়া তিনি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও অংশ নিতে পারবেন।
বোর্ড সভাপতি বলেছেন, মূলত সাকিবের আবেদনের ভাষা এবং নিষিদ্ধ হওয়ার পর থেকে তার আচার-আচরণে যে পরিবর্তন এসেছে, তাতেই সন্তুষ্ট হয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। তবে খেলা শুরু করার পর সাকিবের আচরণ পর্যবেক্ষণে রেখে এই সিদ্ধান্ত কমানো বা বাড়ানোও হতে পারে।
এর আগে গত ৭ জুলাই নবনিযুক্ত কোচ চন্দিকা হাতুরুসিংহের সাথে খারাপ ব্যবহার, জাতীয় দলের হয়ে না খেলার হুমকি ও সামপ্রতিক সময়ে একজন দর্শককে মারধরের মতো আচরণগত সমস্যার প্রেক্ষিতে সাকিব আল হাসানকে ছয় মাসের জন্য সকল ধরনের ক্রিকেটে ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ করে বিসিবি। এছাড়াও আগামী বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত তার বিদেশে খেলার অনুমতিও বাতিল করে বোর্ড।
ওই শাস্তির ফলে চলতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যেতে পারেনি সাকিব। এ ছাড়া শাস্তি বহাল থাকলে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপের এক মাস আগেই কেবল খেলায় ফিরতে পারতেন।
বিসিবি’র জরুরি সভায় ৭ জুলাই সর্বসম্মতভাবে এ সিদ্ধান্ত হয়েছিল। এবার সে সিদ্ধান্ত বদলের কারণ বলতে গিয়ে সভাপতি পাপন বলেছেন, ‘সাকিব যে আবেদনটি করেছে, আমরা তার ভাষা পড়ে সন্তুষ্ট হয়েছি। যদিও মাঠে খেলা শুরু না করলে সেটা কতোটা পরিবর্তিত হয়েছে, বোঝা যাবে না। তবে এটা ঠিক যে, এই সময়কালে তার আচরণে এক ধরনের ইতিবাচক পরিবর্তন আমরা লক্ষ্য করেছি।’
যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিজে দলের খারাপ পারফরম্যান্সের পর জিম্বাবুয়ে সফরের আগে সাকিবকে পাওয়াটা দলের জন্য খুব প্রয়োজনীয় হবে। তবে পাপন বললেন, দলের খারাপ পারফরম্যান্স এই সিদ্ধান্ত নিতে তাদের কোনোরকম অনুপ্রাণিত করেনি।

শেষ পর্যন্ত হারই হলো!

21-2শেষ পর্যন্ত স্বাগতিকরাই জিতলো। প্রথম ওয়ানডেতে তিন উইকেটের জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আর এ জয়ে বড় অবদান রামদিনের সঙ্গে পোলার্ডের ১৪৫ রানের বড় জুটির। তবে এনামুল হকের শতকে স্বাগতিকদের সামনে মোটামুটি লক্ষ্য দাঁড় করিয়েছিল বাংলাদেশ।

বুধবার গ্রেনাডার সেন্ট জর্জে ন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে ২১৭ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে ৩৯ ওভার ৪ বলে ৭ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ৫০ ওভারে ২১৭/৯ (তামিম ২৬, এনামুল ১০৯, ইমরুল ৯, শামসুর ৮, মুশফিক ১২, মাহমুদুল্লাহ ১১, নাসির ২৬, সোহাগ ২, মাশরাফি ৩, তাসকিন ০*; ডোয়াইন ব্র্যাভো ৪/৩২, গেইল ১/১৯, হোল্ডার ১/৩৯, রামপল ১/৪৮)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৩৯.৪ ওভারে ২১৯/৭ (গেইল ৩, এডওয়ার্ডস ১০, ড্যারেন ব্র্যাভো ৭, সিমন্স ০, রামদিন ৭৪, ডোয়াইন ব্র্যাভো ৫, পোলার্ড ৮৯, হোল্ডার ২২*, নারাইন ৩*; আল-আমিন ৪/৫১, মাহমুদুল্লাহ ১/২০, মাশরাফি ১/২২, সোহাগ ১/৪৬)

10-1বিতর্কিত ‘প্লেয়ার বাই চয়েস’ পদ্ধতি এবার আর নেই। আজ শুরু হওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের দলবদল হবে পুরোনো পদ্ধতিতেই। খেলোয়াড়দের নিয়ে ক্লাব কর্মকর্তারা ঢাকঢোল পিটিয়ে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের সিসিডিএম কার্যালয়ে আসবেন। উৎসব-উত্তেজনায় মিশে থাকবে কৌতূহল—কে কোন দলে যাচ্ছেন? কে কোন দল ছাড়ছেন?
তবে আজ দলবদল শুরু হয়ে আপাতত সেটি শেষ হয়ে যাবে কালই। এই দুই দিন হবে পুলভুক্ত ২৩ ক্রিকেটারের দলবদল। আগামী ২৭ ও ২৮ আগস্ট পুলের বাইরের বাকি ক্রিকেটারদের। দু-তিনজনকে নিয়ে একটু অনিশ্চয়তা থাকলেও পুলের কোন খেলোয়াড় কোন দলে নাম লেখাচ্ছেন, তা মোটামুটি ঠিকই হয়ে আছে। কাল পর্যন্ত ক্লাব নিশ্চিত হয়নি একমাত্র সোহাগ গাজীর। এ ছাড়া ইমরুল কায়েস বা এনামুল হকের (বিজয়) মধ্যে একজনকেও ক্লাব পাওয়ার জন্য অপেক্ষায় থাকতে হবে দলবদল শেষ হওয়া পর্যন্ত।ক্রিকেট খেলায় ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা থাকায় পুলে রাখা হয়নি সাকিব আল হাসানকে। যদিও শোনা যাচ্ছে, বোর্ডের আসন্ন সভায় তাঁকে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হতে পারে। সে ক্ষেত্রে সাকিবের দলবদলের প্রক্রিয়াটা কীভাবে হবে, সেটাও তখনই জানা যাবে। তবে তাঁর খেলার সম্ভাবনা গাজী ট্যাংকেই (লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ) বেশি।‘প্লেয়ার বাই চয়েস’ পদ্ধতিতে খেলোয়াড়দের ক্লাবের সঙ্গে দরদামের সুযোগ ছিল না। একজন খেলোয়াড়ের মূল্য সর্বোচ্চ কত হবে, সেটা বেঁধে দিয়েছিল বিসিবি। ২৫ লাখ টাকার ওপরে পাননি কোনো ক্রিকেটারই। সেই টাকাও আবার ক্লাবগুলো দিয়েছিল কে কয়টা ম্যাচ খেলেছে সেটা হিসাব করে। পুলের ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে ম্যাচ ধরে ধরে টাকা দেওয়ার নিয়মটা এবারও চালু থাকছে। তবে মূল্যসীমার নিয়ম উঠে যাওয়ায় ক্রিকেটারেরা যে যাঁর মতো টাকা দাবি করতে পারছেন। যত দূর জানা গেছে, এবারের দলবদলে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ দাম উঠেছে মুশফিকুর রহিমের। শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব থেকে জাতীয় দলের অধিনায়ক নাকি ৫০ লাখ টাকায় চলে যাচ্ছেন প্রাইম দোলেশ্বরে।

গতবারের তিন নম্বর দল প্রাইম দোলেশ্বর মুশফিকের সঙ্গে নিচ্ছে মুমিনুল হক আর শফিউল ইসলামকেও। গতবারের চ্যাম্পিয়ন গাজী ট্যাংক নিচ্ছে তামিম ইকবাল, রুবেল হোসেন আর সাব্বির আহমেদকে। আবাহনী আল-আমিন আর জিয়াউর রহমানকে নিশ্চিত করলেও পুলের তৃতীয় ক্রিকেটারের ব্যাপারে কাল পর্যন্তও সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছিল। তবে তা ইমরুল কায়েস অথবা এনামুল হকের (বিজয়) মধ্যে কেউ একজন হবেন বলেই নিশ্চিত করেছে ক্লাব সূত্র।

নাঈম ইসলাম ও মোহাম্মদ মিঠুনের সঙ্গে মোহামেডান গতবারের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকেও ধরে রাখতে চায় বলে খবর। যদিও মাশরাফির দিকে দৃষ্টি আছে কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমিরও। কলাবাগানের এ ক্লাবটি কাল পর্যন্ত নাসির হোসেন আর আরাফাত সানিকে নিশ্চিত করলেও পুলের খেলোয়াড়দের তৃতীয় জায়গাটি খালি রেখেছে। তবে কলাবাগানের আরেক দল কলাবাগান ক্রীড়াচক্র মার্শাল আইয়ুব, শামসুর রহমান ও রবিউল ইসলামকে নিশ্চিত করে ফেলেছে। এ ছাড়া প্রাইম ব্যাংক নিয়েছে মাহমুদউল্লাহ, ফরহাদ রেজা ও তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদকে। আর গতবারের রানার্সআপ শেখ জামাল এখন পর্যন্ত নিশ্চিত করেছে শুধুই আবদুর রাজ্জাককে।

গতবার বঞ্চিত হওয়ার কারণেই কি না এবার ​তারকা ক্রিকেটাররা চড়া দাম হাঁকাচ্ছেন। জাতীয় দলের মধ্যম সারির ক্রিকেটারদের দাবির অঙ্কও ছুঁয়ে ফেলছে ৩০-৩৫ লাখ টাকা।

মুশফিক পেলেন বর্ষসেরার পুরস্কার

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের হাতে উঠেছে ২০১৩ সালের গ্রামীণফোন-প্রথম আলো বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের পুরস্কার। রানারআপ হয়েছেন সোহাগ গাজী ও গলফার সিদ্দিকুর রহিম।
সোনারগাঁও হোটেলের গ্র্যান্ড বলরুমে অনুষ্ঠিত এবারের গ্রামীণফোন-প্রথম আলো ক্রীড়া পুরস্কার অনুষ্ঠানে শুরুতেই দেওয়া হয় আজীবন সম্মাননা পুরস্কার। বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে অবদানের স্বীকৃতিসূচক এই পুরস্কারটি পেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রথম অধিনায়ক শামিম কবির।

বর্ষসেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার পেয়েছেন মমিনুল হক। বর্ষসেরা নারী ক্রীড়াবিদ নির্বাচিত হয়েছেন শাহনাজ পারভিন। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলছে।

Developed by: